হা’য়দরাবাদের ধ’র্ষণকাণ্ড নিয়ে সরগরম ভারত। দেশটির অন্যান্য জায়গা থেকেও পাওয়া যা’চ্ছে একই ধরনের খবর। রী’তিমতো প্র’তিদিনই সামনে আসছে ধ’র্ষণের ঘটনা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে অ’ভিযুক্ত ধরা পড়লেও অ’পরাধ কি’ন্তু কমছে না।




বরং দিনে দিনে বাড়ছে এই প্রবণতা। ঠিক কোথায়, কিভাবে এর থেকে মু’ক্তি; তাই ভাবছে সকলে। আর এরই মাঝে চার বছরের এক শি’শুকে ধ’র্ষণ করতে গিয়ে হাতে’নাতে ধরা পড়েছেন ৩৫ বছর বয়সী যু’বক।




ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের ম’হারাষ্ট্রের নাগপুরের পা’র্দি এলাকায়। দেশটির স্থা’নীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, অ’ভিযুক্ত যুবকের নাম জওহর। তিনি স্থা’নীয় সমবায় ব্যাং’কে চাকরি করেন। গতকাল রবিবার টাকা সং’গ্রহ করতেই ওই এলাকার একটি বাড়িতে যান তিনি।




প্রতিদিনই ওই শি’শুর বাড়িতে টাকা তুলতে যান। কিন্তু রবিবার স’ন্ধ্যাবেলা ছোট্ট শি’শুকে একা পেয়ে ঘরের ভিতর ঢুকে পড়ে জওহর। এরপরে চার বছর বয়সী ওই ক’ন্যা শি’শুকে ধ’র্ষেণচেষ্টা করেন।




ঘটনার সময় বাড়িতে ছিলেন না শি’শুর মা। বাড়ি ফিরে ওই দৃ’শ্য দেখে আ’তঙ্কে চি’ৎকার করে ওঠেন তিনি। তার চি’ৎকারে ছুটে আসেন প্রতিবেশীরা। এরপরে মা’রধরও নাকি করা হয় অ’ভিযুক্তকে।




এরই মধ্যে ওই যুবকের বি’রুদ্ধে থানায় ভারতীয় দ’ণ্ডবিধি (আইপিসি) এবং শি’শু নি’র্যাতন ও যৌ’ন অ’পরাধ (পোকসো) আইনের বি’ভিন্ন ধারায় মা’মলা দা’য়ের করেছে পু’লিশ।




শি’শুকে ধ’র্ষণের চেষ্টা করার অ’পরাধে সম্পূর্ণ ন’গ্ন করে তাকে গোটা এলাকায় ঘোরালেন এ’লাকাবাসী।এরপর খবর দেওয়া হয় স্থা’নীয় পু’লিশকে। পু’লিশ এসে তাকে নিয়ে যায় থা’নায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here