পশ্চিম আফ্রিকার লাইবেরিয়ার একটি স্কুলে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে কমপক্ষে ২৭ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এদের বয়স ১০ বছরের মধ্যে। প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন ইমাম এবং ২ শিশু। তাঁদের হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। বুধবার দেশটির পুলিশের তরফ থেকে একথা জানানো হয়েছে।




‘শিক্ষার্থীরা যখন পবিত্র কোরআন পড়ছিল সে সময় আগুন লাগে’ বলে পুলিশের মুখপাত্র মোসেস কার্টার জানিয়েছেন।এই অগ্নিকাণ্ডের প্রকৃত কারণ জানা যায়নি। তবে বৈদ্যুতিন শর্টসার্কিট থেকে এই আগুন লাগে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে। গোটা ঘটনার বিশদ তদন্ত করছে পুলিশ।




লাইবেরিয়ার প্রেসিডেন্ট জর্জ উইয়া ট্যুইট করে জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতে রাজধানী মোনরোভিয়ার উপকণ্ঠে ওই স্কুলটিতে আগুন লাগে। আবাসিক ওই স্কুলটিতে মোট ২৯ জন শিক্ষার্থী পড়ত।তিনি লিখেছেন, ‘গত রাতে পেনেসভিল্লে শহরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নিহত শিশুদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা। স্বজনহারা পরিবার এবং সমগ্র লাইবেরিয়ার ক্ষেত্রে এটি খুব কঠিন সময়।’




লাইবেরিয়ার বড় শহরগুলিতে বাড়ি ভেঙে পড়া বা ত্রুটিপূর্ণ বিদ্যুৎ পরিবহন ব্যবস্থার কারণে আগুন লাগা কোনও নতুন ঘটনা নয়। তবে এই ধরনের ভয়ঙ্কর অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা সাম্প্রতিক সময়ে ঘটেনি বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *